Story of Success

ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউট অব সাইন্স এন্ড টেকনোলজি এখানকার শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার গড়ার জন্য কাজ করে থাকে। আমরা এখানকার শিক্ষার্থীদের বর্তমান কর্মবাজারের দক্ষতার চাহিদা মোতাবেক শিক্ষা দিয়ে থাকে। ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউটের শিক্ষার্থীরা দেশে বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত রয়েছে। একই সাথে এখনকার শিক্ষার্থীরা ডিপ্লোমা শেষ করে দেশে ও বিদেশের বিভিন্ন স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত আছে।


টেক্সটাইল ও গার্মোঃমেন্টস টেকনোলজির শিক্ষার্থীদের অসাধারণ সাফল্যঃ


মহিউদ্দিন মামুন (কম্পিউটার টেকনোলজি, ২০০৫-০৬ সেশন)

মহিউদ্দিন মামুন ২০০৯ সালে ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউট থেকে ৩.৯৩ সিজিপিএ নিয়ে সমগ্র বাংলাদেশে ৩য় স্থান অধিকার করে ডিপ্লোমা শেষ করে বর্তমানে গোপালগঞ্জ সরকারি পলিটেকনিক ইনষ্টিটিউটে শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছে।


মোঃ তানভির আহমেদ (কম্পিউটার টেকনোলজি, ২০০৬-০৭ সেশন)

তানভির আহমেদ ২০১০ সালে ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউট থেকে ৩.৮৯ সিজিপিএ নিয়ে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডর মেধা তালিকায় স্থান করে ডিপ্লোমা শেষ করে বর্তমানে ঢাকা পাওয়ার ডিষ্ট্রিবিউশন কোম্পনাীতে কর্মরত আছে।


রাশাদ হাসান(সিভিল টেকনোলজি, ২০১০-১১ সেশন)

রাশাদ হাসান ২০১৪ সালে ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউট থেকে সিভিল টেকনোলজি থেকে পাশ করে বর্তমানে শাহ সিমেন্ট লিমিটেড েএর প্রোডাক্ট ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত আছে।


মোঃ নুরুল ইসলাম (মেকানিক্যাল টেকনোলজি, ২০১১-১২ সেশন)

নুরুল ইসলাম ২০১৫ সালে ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউট থেকে মেকানিক্যাল টেকনোলজি থেকে পাশ করে বর্তমানে জনতা জুট মিলস লিমিটেড এর সাব এ্যাসিষ্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত আছে।                                                 


শীপবিল্ডিং টেকনোজির শিক্ষার্থীদের সাফল্য


মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন (ইলেকট্রিক্যাল টেকনোলজি, ২০১০-১১ সেশন)

আব্দুল্লাহ আল মামুন ২০১৪ সালে ম্যানগ্রোভ ইনষ্টিটিউট থেকে ইলেকট্রিক্যাল টেকনোলজি থেকে পাশ করে বর্তমানে লিরা গ্রুপ অব ইন্ডাষ্ট্রিজ এর সাব এ্যাসিষ্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কর্মরত আছে।